Brahmanbaria ০৯:৩৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Last News :
আখাউড়া স্থলবন্দর চার দিনে ছুটির ঘোষণা  আবেশের উদ্যোগে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ প্রাপ্ত ও মেধাবী চারশত  শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রধান কাঙ্ক্ষিত ইজারামূল্য না পাওয়ায় একমাত্র পশুহাটটি পরিচালনা করবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫০ জন ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে গৃহ প্রদান অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ের জায়গায় বাজার ইজার দিয়েছেন পৌরসভা, নিরব রেল কর্তৃপক্ষ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায়“ভূমি সেবা সপ্তাহ-২০২৪” এর উদ্বোধন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইজাজ হত্যার মূল আসামি  ফারাবি অস্ত্রসহ গ্রেফতার। সরাইলে ৪২ ভূমিহীন পরিবারের জন্য ভূমির দাবীতে মানববন্ধন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিন উপজেলায় বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান হলেন  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জাল স্বাক্ষরে মাদ্রসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন স্থগিতের অভিযোগ

বিজয়নগরে সরকারি রাস্তা দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ

  • Reporter Name
  • Update Time : ০১:৪১:০৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০২৩
  • ৪৮৩ Time View

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরের সিংগারবীল ইউনিয়নের খিরাতলা জামে মসজিদের পাশে ১৭১ (সে:মি) দাগে হালে বিএস চূড়ান্ত ৩৭৭ দাগের প্রায়ই ৬০ ফুট প্রসস্থ জনসাধারণের চলাচলের সরকারি রাস্তায় অবৈধ স্থাপনা নির্মাণকারীদের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনাক্রমে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসক ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবর অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন।

শুক্রবার (২২ ডিসেম্বর) রাত ৮টার দিকে অভিযোগকারী রফিকুল হক ভূইয়া সাংবাদিকদেরকে অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সরকারি রাস্তা অবৈধ দখলকারীদের নাম: খিরাতলা গ্রামের মৃত মরতুজ আলীর ছেলে কাশেম মিয়া ও তোতা মিয়া, মৃত নূর মিয়ার ছেলে শাহ আলম, মৃত ছায়েদ মিয়া ছেলে জাহার মিয়া, মৃত আব্দুল যোহর মিয়ার ছেলে রফিক মিয়া, জলফু মিয়ার ছেলে শাহ আলম ও রৌশন আলীসিহ আরও অজ্ঞাত ৪-৫ জন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক (১৪/১২/২০২৩ইং) ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) (২৭/১১/২০২৩ইং) অভিযোগপত্রে উল্লেখ আছে, বিজয়নগরের সিংগারবীল খিরাতলা জামে মসজিদের পাশে ১৭১ (সে:মি) দাগে হালে বিএস চূড়ান্ত ৩৭৭ দাগের প্রায়ই ৬০ ফুট প্রসস্থ জনসাধারণের চলাচলের সরকারি রাস্তায় অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ কাজ চলিতেছে। এক হাজার একর কৃষি জমির ফসল উৎপাদন ও ফসল সংগ্রহের কাজ উক্ত রাস্তা দিয়ে দীর্ঘ একশো বছর যাবত করে আসছে কিন্তু অবৈধ দখলদারগণ উক্ত রাস্তায় অবৈধ স্থাপনা, বসতবাড়ি ও দোকান নির্মাণ করিয়া রাস্তা দখল করে নেয়৷ যার ফলে কৃষি জমি ফসল উৎপাদন ও ফসল সংগ্রহে যাতায়াত ব্যবস্থা ব্যাঘাত ঘটছে এবং সাধারণ কৃষক আর্থিক ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। উক্ত রাস্তার বিষয়ে ২০০৪ সালে হইতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জন উপজেলা প্রশাসনের নিকট অভিযোগ করিয়া কোন প্রতিকার পায় নাই। উপজেলা প্রশাসনের কিছু সংখ্যক অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহযোগিতায় ও যোগসাজশে উক্ত স্থাপনা সমূহ নির্মাণ করিয়া আসিতেছে। উক্ত বিষয়ে বিগত ২০০৪ সাল হইতে বিভিন্ন গণমাধ্যম পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। তারপরও দখলদারদের বিরুদ্ধে কোন আইনী ব্যবস্থা নেইনি উপজেলা প্রশাসন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি আবু নাছের সজরুল হক সুজন বলেন, সরকারি রাস্তাটি দীর্ঘদিন যাবত দখলদারদের জিম্মায় রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে একাধিকবার অভিযোগ দিয়েও জনসাধারণের রাস্তাটি উদ্ধার হয়নি। তারা জোরপূর্বক ভাবে সরকারি রাস্তা দখল করে রেখেছে। জনসাধারণের চলাচলের সরকারি রাস্তাটি দ্রুত উদ্ধারের দাবি জানান তিনি।

বিজয়নগর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মেহেদী হাসান খান শাওন বলেন, একটি অভিযোগপত্র পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত চলছে। খুব শীঘ্রই দখলদারদের কাছ থেকে সরকারি রাস্তা উদ্ধার করা হবে এবং তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নিবো।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

জনপ্রিয় খবর

আখাউড়া স্থলবন্দর চার দিনে ছুটির ঘোষণা 

বিজয়নগরে সরকারি রাস্তা দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ

Update Time : ০১:৪১:০৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরের সিংগারবীল ইউনিয়নের খিরাতলা জামে মসজিদের পাশে ১৭১ (সে:মি) দাগে হালে বিএস চূড়ান্ত ৩৭৭ দাগের প্রায়ই ৬০ ফুট প্রসস্থ জনসাধারণের চলাচলের সরকারি রাস্তায় অবৈধ স্থাপনা নির্মাণকারীদের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনাক্রমে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসক ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবর অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন।

শুক্রবার (২২ ডিসেম্বর) রাত ৮টার দিকে অভিযোগকারী রফিকুল হক ভূইয়া সাংবাদিকদেরকে অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সরকারি রাস্তা অবৈধ দখলকারীদের নাম: খিরাতলা গ্রামের মৃত মরতুজ আলীর ছেলে কাশেম মিয়া ও তোতা মিয়া, মৃত নূর মিয়ার ছেলে শাহ আলম, মৃত ছায়েদ মিয়া ছেলে জাহার মিয়া, মৃত আব্দুল যোহর মিয়ার ছেলে রফিক মিয়া, জলফু মিয়ার ছেলে শাহ আলম ও রৌশন আলীসিহ আরও অজ্ঞাত ৪-৫ জন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক (১৪/১২/২০২৩ইং) ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) (২৭/১১/২০২৩ইং) অভিযোগপত্রে উল্লেখ আছে, বিজয়নগরের সিংগারবীল খিরাতলা জামে মসজিদের পাশে ১৭১ (সে:মি) দাগে হালে বিএস চূড়ান্ত ৩৭৭ দাগের প্রায়ই ৬০ ফুট প্রসস্থ জনসাধারণের চলাচলের সরকারি রাস্তায় অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ কাজ চলিতেছে। এক হাজার একর কৃষি জমির ফসল উৎপাদন ও ফসল সংগ্রহের কাজ উক্ত রাস্তা দিয়ে দীর্ঘ একশো বছর যাবত করে আসছে কিন্তু অবৈধ দখলদারগণ উক্ত রাস্তায় অবৈধ স্থাপনা, বসতবাড়ি ও দোকান নির্মাণ করিয়া রাস্তা দখল করে নেয়৷ যার ফলে কৃষি জমি ফসল উৎপাদন ও ফসল সংগ্রহে যাতায়াত ব্যবস্থা ব্যাঘাত ঘটছে এবং সাধারণ কৃষক আর্থিক ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। উক্ত রাস্তার বিষয়ে ২০০৪ সালে হইতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জন উপজেলা প্রশাসনের নিকট অভিযোগ করিয়া কোন প্রতিকার পায় নাই। উপজেলা প্রশাসনের কিছু সংখ্যক অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহযোগিতায় ও যোগসাজশে উক্ত স্থাপনা সমূহ নির্মাণ করিয়া আসিতেছে। উক্ত বিষয়ে বিগত ২০০৪ সাল হইতে বিভিন্ন গণমাধ্যম পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। তারপরও দখলদারদের বিরুদ্ধে কোন আইনী ব্যবস্থা নেইনি উপজেলা প্রশাসন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি আবু নাছের সজরুল হক সুজন বলেন, সরকারি রাস্তাটি দীর্ঘদিন যাবত দখলদারদের জিম্মায় রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে একাধিকবার অভিযোগ দিয়েও জনসাধারণের রাস্তাটি উদ্ধার হয়নি। তারা জোরপূর্বক ভাবে সরকারি রাস্তা দখল করে রেখেছে। জনসাধারণের চলাচলের সরকারি রাস্তাটি দ্রুত উদ্ধারের দাবি জানান তিনি।

বিজয়নগর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মেহেদী হাসান খান শাওন বলেন, একটি অভিযোগপত্র পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত চলছে। খুব শীঘ্রই দখলদারদের কাছ থেকে সরকারি রাস্তা উদ্ধার করা হবে এবং তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নিবো।