Brahmanbaria ১১:২২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Last News :
আখাউড়া স্থলবন্দর চার দিনে ছুটির ঘোষণা  আবেশের উদ্যোগে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ প্রাপ্ত ও মেধাবী চারশত  শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রধান কাঙ্ক্ষিত ইজারামূল্য না পাওয়ায় একমাত্র পশুহাটটি পরিচালনা করবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫০ জন ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে গৃহ প্রদান অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ের জায়গায় বাজার ইজার দিয়েছেন পৌরসভা, নিরব রেল কর্তৃপক্ষ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায়“ভূমি সেবা সপ্তাহ-২০২৪” এর উদ্বোধন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইজাজ হত্যার মূল আসামি  ফারাবি অস্ত্রসহ গ্রেফতার। সরাইলে ৪২ ভূমিহীন পরিবারের জন্য ভূমির দাবীতে মানববন্ধন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিন উপজেলায় বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান হলেন  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জাল স্বাক্ষরে মাদ্রসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন স্থগিতের অভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মালবাহী কন্টেইনার ট্রেন লাইনচ্যুত, ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৩:০৫:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২৩
  • ৫৪৭ Time View
আজ রবিবার ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-সিলেট রেলপথের ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মালবাহী কন্টেইনার ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। এতে আপ লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকলেও স্বাভাবিক রয়েছে ডাউন লাইনে ট্রেন চলাচল। আজ সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে ষ্টেশনে লেভেল ক্রসিং এলাকার আউটারে কলেজপাড়ায় এ লাইনচ্যুতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ঢাকা রেলওয়ের সহকারী পরিবহন কর্মকর্তা মো. সাজিদুল ইসলামকে কমিটির প্রধান করে ৪ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্র ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মোঃ জসীম উদ্দিন জানান, চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ৬০৭ নম্বর মালবাহী কনটেইনার ট্রেন সকাল সোয়া আটটার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার পাঘাচং রেলস্টেশন অতিক্রম করে। সকাল ৮টা ৪০মিনিটে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের লেভেল ক্রসিং এলাকার পূর্ব দিকের আউটারে কলেজপাড়া এলাকায় পৌঁছালে মালবাহী ট্রেনের ৩১নম্বর বগির পেছনের চারটি চাকা লাইনচ্যুত হয়। এতে রেললাইনের পাত বাঁকা হয়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয় এবং স্লিপার ভেঙ্গে যায়। বগি লাইনচ্যুতির কারনে প্রায় আধা কিলোমিটার এলাকার রেললাইন ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। রেলের দুটি লাইন ট্র্যাক থেকে সরে বেঁকে গেছে। রেলওয়ের কর্মীরা ফিশপ্লেট ও স্লিপার ক্লিপ কুড়িয়ে লেভেল ক্রসিংয়ের পাশের কক্ষে নিয়ে জড়ো করছেন। ৩০০ থেকে ৩৫০টি স্লিপার ক্লিপ সরে গেছে। আপ লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ হলেও ডাউন লাইন দিয়ে আপ লাইনের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। মেরামত না হওয়া পর্যন্ত ভৈরত থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আপ
লাইনের ট্রেনগুলোকে পাঘাচং রেল স্টেশন থেকে তালশহর স্টেশন পর্যন্ত প্রায় ১৬ কিলোমিটার ডাউন লাইন ব্যাবহার করতে হচ্ছে। খবর পেয়ে পুলিশ, স্টেশনমাস্টার ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সেলিম শেখ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থ রেল লাইন মেরামতের কাজ শেষ না হওয়ায় আখাউড়া থেকে রিলিফ ট্রেন এসে ঘটনাস্থলে পৌছায়নি।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশন মাস্টার জসিম জানান, এটি দুর্ঘটনা না নাশকতা বলা যাচ্ছেনা। সংশ্লিষ্টরা এ বিষয়ে তদন্ত করলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ায় আপলাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। রেললাইন ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় এখন ডাউনলাইন দিয়ে সব ট্রেন চলাচল করবে।
আখাউড়া রেলওয়ে জংশন রেল স্টেশনের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী (রেলওয়ে) মেহেদী
হাসান বলেন, ৬০টি স্লিপার ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।
মালবাহী কন্টেইনার ট্রেন লাইনচ্যুতের ঘটনায় চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঢাকা রেলওয়ের সহকারী পরিবহন কর্মকর্তা মো. সাজিদুল ইসলামকে কমিটির প্রধান করা হয়েছে। বিকেল ৩টার দিকে তদন্ত কমিটির সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসেন। তদন্ত কমিটির প্রধান সহকারি পরিবহন কর্মকর্তা মো. সাজিদুল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থলে আসলাম কি ত্রুটি রয়েছে। সেগুলোর রিডিং নিবো, পরে মূলত জানা যাবে কি কারণে ঘটনাটি সংঘটিত হয়েছে।
Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

জনপ্রিয় খবর

আখাউড়া স্থলবন্দর চার দিনে ছুটির ঘোষণা 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মালবাহী কন্টেইনার ট্রেন লাইনচ্যুত, ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি

Update Time : ০৩:০৫:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২৩
আজ রবিবার ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-সিলেট রেলপথের ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মালবাহী কন্টেইনার ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। এতে আপ লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকলেও স্বাভাবিক রয়েছে ডাউন লাইনে ট্রেন চলাচল। আজ সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে ষ্টেশনে লেভেল ক্রসিং এলাকার আউটারে কলেজপাড়ায় এ লাইনচ্যুতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ঢাকা রেলওয়ের সহকারী পরিবহন কর্মকর্তা মো. সাজিদুল ইসলামকে কমিটির প্রধান করে ৪ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্র ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মোঃ জসীম উদ্দিন জানান, চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ৬০৭ নম্বর মালবাহী কনটেইনার ট্রেন সকাল সোয়া আটটার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার পাঘাচং রেলস্টেশন অতিক্রম করে। সকাল ৮টা ৪০মিনিটে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের লেভেল ক্রসিং এলাকার পূর্ব দিকের আউটারে কলেজপাড়া এলাকায় পৌঁছালে মালবাহী ট্রেনের ৩১নম্বর বগির পেছনের চারটি চাকা লাইনচ্যুত হয়। এতে রেললাইনের পাত বাঁকা হয়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয় এবং স্লিপার ভেঙ্গে যায়। বগি লাইনচ্যুতির কারনে প্রায় আধা কিলোমিটার এলাকার রেললাইন ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। রেলের দুটি লাইন ট্র্যাক থেকে সরে বেঁকে গেছে। রেলওয়ের কর্মীরা ফিশপ্লেট ও স্লিপার ক্লিপ কুড়িয়ে লেভেল ক্রসিংয়ের পাশের কক্ষে নিয়ে জড়ো করছেন। ৩০০ থেকে ৩৫০টি স্লিপার ক্লিপ সরে গেছে। আপ লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ হলেও ডাউন লাইন দিয়ে আপ লাইনের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। মেরামত না হওয়া পর্যন্ত ভৈরত থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আপ
লাইনের ট্রেনগুলোকে পাঘাচং রেল স্টেশন থেকে তালশহর স্টেশন পর্যন্ত প্রায় ১৬ কিলোমিটার ডাউন লাইন ব্যাবহার করতে হচ্ছে। খবর পেয়ে পুলিশ, স্টেশনমাস্টার ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সেলিম শেখ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থ রেল লাইন মেরামতের কাজ শেষ না হওয়ায় আখাউড়া থেকে রিলিফ ট্রেন এসে ঘটনাস্থলে পৌছায়নি।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশন মাস্টার জসিম জানান, এটি দুর্ঘটনা না নাশকতা বলা যাচ্ছেনা। সংশ্লিষ্টরা এ বিষয়ে তদন্ত করলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ায় আপলাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। রেললাইন ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় এখন ডাউনলাইন দিয়ে সব ট্রেন চলাচল করবে।
আখাউড়া রেলওয়ে জংশন রেল স্টেশনের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী (রেলওয়ে) মেহেদী
হাসান বলেন, ৬০টি স্লিপার ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।
মালবাহী কন্টেইনার ট্রেন লাইনচ্যুতের ঘটনায় চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঢাকা রেলওয়ের সহকারী পরিবহন কর্মকর্তা মো. সাজিদুল ইসলামকে কমিটির প্রধান করা হয়েছে। বিকেল ৩টার দিকে তদন্ত কমিটির সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসেন। তদন্ত কমিটির প্রধান সহকারি পরিবহন কর্মকর্তা মো. সাজিদুল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থলে আসলাম কি ত্রুটি রয়েছে। সেগুলোর রিডিং নিবো, পরে মূলত জানা যাবে কি কারণে ঘটনাটি সংঘটিত হয়েছে।